BOOMBangla
BOOMBangla

কংগ্রেসের কৃষক সমাবেশের ছাঁটাই ভিডিও টুইট করলেন সম্বিত পাত্র

কংগ্রেসের কৃষক সমাবেশের ছাঁটাই ভিডিও টুইট করলেন সম্বিত পাত্র
  • 95d
  • 0 views
  • 0 shares

বিজেপি মুখপাত্র সম্বিত পাত্র (Sambit Patra) একটি ভিডিও টুইট করেছেন যেটিতে সম্প্রতি আয়োজিত কংগ্রেসের (Congress) এক জনসভার মঞ্চ থেকে আজান দিতে শোনা যাচ্ছে। কিন্তু ওই ভিডিওটির একটি বড় সংস্করণে দেখা যায় যে, ওই জনসভায় সব ধর্মের প্রার্থনাই স্থান পেয়েছিল।

ভিডিওটি এই দাবি সমেত ভাইরাল হয়েছে যে, প্রিয়ঙ্কা গাঁধী বঢরা ও কংগ্রেস পার্টি মুসলমানদের খুশি করার জন্য আজানের ব্যবস্থা করেন।

আরও পড়ুন
The Indian voice
The Indian voice@sarkar31322927110510

ইন্টারকন্টিন্যান্টাল ব্যালেস্টিক মিসাইলের সফল উৎক্ষেপণ ! ভয়ঙ্কর অস্ত্র তৈরির মাধ্যমে এই বিশ্বকে ধ্বংসের পথে নিয়ে যাচ্ছি আমরাই

ইন্টারকন্টিন্যান্টাল ব্যালেস্টিক মিসাইলের সফল উৎক্ষেপণ !  ভয়ঙ্কর অস্ত্র তৈরির মাধ্যমে এই বিশ্বকে ধ্বংসের পথে নিয়ে যাচ্ছি আমরাই
  • 3d
  • 0 views
  • 12k shares

ব্যালেস্টিক মিসাইলের কথা উঠলেই তার আঁতুড়ঘর হিসেবে ধরে নেওয়া হয় জার্মানিকে। তবে ইতিহাস ঘাঁটলে দেখা যাবে বিশ্বের প্রথম ইন্টার কন্টিন্যান্টাল ব্যালেস্টিক মিসাইলটি (আইসিবিএম) উৎক্ষেপণ করেছিল তৎকালীন সোভিয়েত ইউনিয়ন (ইউএসএসআর)। পঞ্চাশের দশকে স্নায়ুযুদ্ধ বা কোল্ড ওয়ারের সময় মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ও তার মিত্র দেশগুলিকে কৌশলগতভাবে চাপে রাখতে এবং ইউরোপিযান দেশগুলোতে পারমাণবিক অস্ত্র হামলার কৌশলকে সামনে রেখে রাশিয়া অত্যন্ত গোপনে  ইন্টার কন্টিন্যান্টাল ব্যালেস্টিক মিসাইল (আইসিবিএম) নিয়ে গবেষণা শুরু করেছিল। সোভিয়েত ইউনিয়ন সেই সময় অল্প সময়ের মধ্যে প্রভূত উন্নতি সাধন করে প্রথমবারের চেষ্টাতেই ইন্টার কন্টিন্যাটাল ব্যালেস্টিক মিসাইল (আইসিবিএম) উৎক্ষেপণ এ সফলতা অর্জন করেছিল ঠিকই কিন্ত তাদের গবেষণা ছিল না মোটেও মৌলিক।

আরও পড়ুন
Asianet বাংলা
Asianet বাংলা

একই ঘরে বসেছিলেন মা ও ছেলে, জানলা দিয়ে ঘরে বিদ্যুত্‍ ঢুকে ঝলসে গেল শরীর

একই ঘরে বসেছিলেন মা ও ছেলে, জানলা দিয়ে ঘরে বিদ্যুত্‍ ঢুকে ঝলসে গেল শরীর
  • 8hr
  • 0 views
  • 16 shares

বিদ্যুত্‍পৃষ্ট (Lightning) হয়ে আহত মা ও ছেলে। এই মর্মান্তিক ঘটনাটি ঘটেছে খাস কলকাতায় (Kolkata)। শনিবার সকালে এই ঘটনাটি ঘটেছে বাঁশদ্রোণীর কামঢহরী বোস পাড়া এলাকায়। তাঁদের উদ্ধার করে হাসপাতালে (Hospital) নিয়ে যান স্থানীয় বাসিন্দারা। দু'জনের অবস্থা আপাতত স্থিতিশীল বলে জানা গিয়েছে।

আরও পড়ুন

No Internet connection