Wednesday, 12 Aug, 12.00 am DW

দূনিযা
হিন্দু মেয়েরা সম্পত্তির সমানাধিকার পাবে ১৯৫৬ থেকে

ভারতে পারিবারিক সম্পত্তির ক্ষেত্রে মেয়েদের সম্পত্তির অধিকার নিশ্চিত করল সুপ্রিম কোর্ট। তারা বলেছে, ১৯৫৬ সাল থেকেই মেয়েরা পারিবারিক সম্পত্তিতে সমানাধিকার পাবে।হিন্দু উত্তরাধিকার সংশোধন আইন চালু হয়েছিল ২০০৫ সালে। হিন্দু পারিবারিক সম্পত্তির ক্ষেত্রে মেয়েরাও যে ছেলেদের সঙ্গে সমানাধিকার পাবে তা নিশ্চিত করা হয়েছিল। সেখানে বলা হয়েছিল, বাবার মৃত্যুর পর ছেলেদের মতো মেয়েরাও পারিবারিক সম্পত্তির সমান অধিকার পাবে। প্রশ্নটা উঠেছিল, ২০০৫-এর আগে বাবার মৃত্যু হলে কী হবে? তখনও কি মেয়েরা এই অধিকার পাবে? বিচারপতি অরুণ মিশ্র, এস নাজির এবং এমআর শাহকে নিয়ে গঠিত বেঞ্চের রায় হলো, ১৯৫৬ সালে হিন্দু উত্তারাধিকার আইন চালু হয়েছে। তখন থেকেই মেয়েরা সম্পত্তির সমান অধিকার পাবেন। ফলে ২০০৫ সালের সংশোধনে মেয়েরা এই অধিকার পেয়েছে ঠিকই, কিন্তু তা চালু হয়ে যাচ্ছে ১৯৫৬ সাল থেকেই। রায়ে বলা হয়েছে, মেয়েদের অধিকার থেকে বঞ্চিত করা যাবে না। হিন্দু মেয়েরা এই অধিকার পান জন্মসূত্রে।

তাই তাঁর বাবার মৃত্যু ২০০৫ সালের আগে না পরে হয়েছে, এই প্রশ্ন অর্থহীন। তবে হিন্দু উত্তরাধিকার আইন মুসলিম, খ্রিষ্টান, পার্সি, ইহুদিদের ক্ষেত্রে বলবত্‍ হয় না। শিখ, বৌদ্ধ, জৈনরা এই আইনের আওতায় পড়েন। বিচারপতি মিশ্র বলেছেন, ''মেয়ে চিরকালই মেয়ে।

ছেলেরা বিয়ে না হওয়া পর্যন্ত ছেলে থাকে। বাবা বেঁচে থাকুন বা না থাকুন, মেয়েরা সম্পত্তিতে ছেলেদের মতো সমান অধিকার পাবেন। মেয়েরা চিরকালই ভালোবাসার পাত্রী এবং মেয়ে হয়েই থাকে।'' সুপ্রিম কোর্টই ২০১৬ ও ২০১৮-তে এ নিয়ে পরস্পরবিরোধী রায় দিয়েছিল। তাই বিভিন্ন হাইকোর্টে একগুচ্ছ মামলা নিয়ে জটিলতা দেখা দেয়। বিচারপতি মিশ্রর নেতৃত্বাধীন বেঞ্চ তাদের রায়ে বলেছে, এখন আর কোনো জটিলতা থাকল না। ছয় মাসের মধ্যে হাইকোর্টগুলিকে এই সংক্রান্ত সব মামলার ফয়সালা করে দিতে হবে। জিএইচ/এসজি(পিটিআই, এএনআই) Analytics pixel
Dailyhunt
Disclaimer: This story is auto-aggregated by a computer program and has not been created or edited by Dailyhunt. Publisher: DW (Bangla)
Top