Wednesday, 12 Aug, 12.00 am DW

দূনিযা
নেদারল্যান্ডে সব চেয়ে বড় কোকেনের ল্যাব উদ্ধার

নেদারল্যান্ডে সব চেয়ে বড় বেআইনি কোকেনের কারবার ধরল পুলিশ। শয়ে শয়ে কেজি কোকেন তৈরি হতো এখানে।আগে ছিল রাইডিং স্কুল। সেটাকেই পরে গোপনে কোকেন ল্যাবে পরিণত করে দুষ্কৃতীরা। আমস্টারডাম থেকে ১২০ কিলোমিটার উত্তরপূর্বের শহর নিজভিনের ল্যাব থেকে হাজার হাজার লিটার রাসায়নিক ও ১০০ কেজি কোকেন উদ্ধার করেছে পুলিশ। ল্যাব থেকে গ্রেফতার করা হয়েছে একজন কলম্বিয়ান, একজন তুরস্কের লোক এবং একজন ডাচ নাগরিককে। তাঁদের জেরা করার পর সেই সূত্র ধরে ১৩ জন কলম্বিয়ান, তিনজন নেদারল্যান্ডের লোক এবং একজন তুরষ্কের নাগরিককে ধরেছে পুলিশ। বোঝা যাচ্ছে, বহুজাতিক মাদক পাচার চক্রের বড় ঘাঁটি ছিল ওই ল্যাবটি। পুলিশ জানিয়েছে, দিনে দেড়শ থেকে দুইশ কেজি কোকেনউত্‍পাদনের ক্ষমতা ছিল ওই ল্যাবের। বাজারে যার দাম ৪৫ লাখ ইউরো। বিশাল কর্মকাণ্ড। প্রচুর লোক এর সঙ্গে জড়িত। আরও কয়েকজনকে গ্রেফতার করা হতে পারে বলে পুলিশ জানিয়েছে।

এই সূত্র ধরেই পুলিশ দক্ষিণ নেদারল্যান্ডের দুইটি শহর থেকে ১২০ টন মাদক পাচারের জিনিস উদ্ধার করেছে। এগুলি মূলত কাপড়, যার মাধ্যমে মাদক পাচার করা হতো। একটা বিশেষ পদ্ধতিতে পুরো কাজ হতো। এই অপারেশনের নাম ছিল ড্রাগ লন্ড্রি।

পুলিশ জানিয়েছে, মাদক একটা তরলে গুলে দেওয়া হতো। তারপর তা কাপড়ে লেপটে দেওয়া হতো। সেই কাপড় নিয়ে আসা হতো নেদারল্যান্ডে। ল্যাবে বিশেষ রাসায়নিকের সাহায্যে মাদক বের করে নেওয়া হতো।

তারপর তা বাজারে যেত। নেদারল্যান্ড থেকেই মূলত ইউরোপের বাজারে মাদক ঢোকে। মূলত রটারডামের বন্দর মারফত কোকেনের চোরাকারবার হয়। নেদারল্যান্ডে দার্ঘদিন ধরেই মাদকের বিরুদ্ধে যুদ্ধ চলছে। সেই যুদ্ধে বড় সাফল্য পেল পুলিশ। জিএইচ/এসজি(এপি, এএফপি, ডিপিএ) Analytics pixel
Dailyhunt
Disclaimer: This story is auto-aggregated by a computer program and has not been created or edited by Dailyhunt. Publisher: DW (Bangla)
Top