Thursday, 16 Sep, 11.17 pm এই মুহূর্তে

কলকাতা
অনুব্রত'র নামে 'মিথ্যাচার' করে, মেডিক্যাল কলেজ আটকানোর ছক শুভেন্দুর

নিজস্ব প্রতিনিধি: রাজ্যের উন্নয়নের পথে বাধা দেওয়াই এখন মূল কাজ হয়েছে শুভেন্দু অধিকারীর। কখনও রাজ্যে থাকা কেন্দ্রীয় সংস্থাকে দিল্লি বা গুজরাতে স্থানান্তরের জন্য শাহি দরবার। আবার কখনও রাজ্যের উন্নয়নে কেন্দ্রের টাকা আটকানোর ছক। নন্দীগ্রামের বিধায়কের আপাতত এই কাজই করে বেড়াচ্ছেন। সেই তালিকায় নবতম সংযোজন বীরভূমের বোলপুরে 'শান্তিনিকেতন মেডিক্যাল কলেজ'-এর কেন্দ্রীয় অনুমোদনে বাধা। বোলপুরে সাধারণ মানুষের চিকিত্‍সার সুবিধার জন্য গড়ে তোলা হচ্ছে এই মেডিক্যাল কলেজ। 'স্বাধীন' নামে একটি বেসরকারি সংস্থা ওই মেডিক্যাল কলেজ তৈরি করছে। আর এতেই আপত্তি শুভেন্দুর। তিনি মানুষের উপকারের কথা না ভেবেই নিজের স্বার্থ-চরিতার্থ করতেই ব্যস্ত। বৃহস্পতিবার ফের 'মিথ্যাচার' করে এই মেডিক্যাল কলেজের অনুমতি না দেওয়ার আর্জি জানিয়ে বিরোধী দলনেতা হিসেবে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী মনসুখ মান্ডবিয়াকে চিঠি লিখেছেন বলে জানা গিয়েছে। চিঠিতে তিনি এই মেডিক্যাল কলেজ গড়ার পিছনে অনুব্রত'র হাতকেই বড় করে দেখিয়েছেন। আর অনুব্রতকে 'অসত্‍' গরু ও কয়লা পাচারের সঙ্গে যুক্ত বলে উল্লেখ করেছেন। গত ৬ সেপ্টেম্বর ন্যাশনাল মেডিক্যাল কমিশনের প্রতিনিধিরা বোলপুরে প্রস্তাবিত মেডিক্যাল কলেজ পরিদর্শন করেন। তাই শুভেন্দু চিঠিতে উল্লেখ করেছেন, যাতে এই মেডিক্যাল কলেজের অনুমোদন কেন্দ্র না দেয়। সেই আর্জি জানিয়ে শুভেন্দু একগুচ্ছ অভিযোগ তুলেছেন।

তিনি চিঠিতে উল্লেখ করেছেন, পশ্চিমবঙ্গের সরকারের স্বাস্থ্য বিভাগের তরফে রাজনৈতিক উদ্দেশ্যে এই ছাড় দেওয়া হয়েছে। কিন্তু যে জমিতে মেডিক্যাল কলেজ তৈরি হচ্ছে, তার মালিকানা নিয়েই প্রশ্ন রয়েছে। মেডিক্যাল কলেজ তৈরির ক্ষেত্রে সামনে অন্য সংস্থার নাম থাকলেও তা চালান অনুব্রতই। এইভাবেই নানা কারণ দেখিয়ে রাজ্যের বিরোধী দলনেতা ওই মেডিক্যাল কলেজকে অনুমতির পুনর্বিবেচনার আর্জি জানিয়েছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রকে।

Dailyhunt
Disclaimer: This story is auto-aggregated by a computer program and has not been created or edited by Dailyhunt. Publisher: Ei Muhurte
Top