Friday, 30 Aug, 12.23 pm মঙ্গলকোট.কম

হোম
জমি জট মিটছে কালনা শান্তিপুর সেতু নির্মাণে

কালনা শান্তিপুর ভাগীরথী নদীতে সেতু তৈরির জন্য জমি জট এখনো ভাবাচ্ছে প্রশাসনকে

শ্যামল রায়



কালনা শান্তিপুর এর মাঝে ভাগীরথী নদীর উপর তৈরি হবে সেতু। নদীয়া বর্ধমানের মধ্যে সংযোগকারী এই সেতুটি তৈরি হলে যোগাযোগ ব্যবস্থার আমূল পরিবর্তন করে যাবে।
নদীর উপর সেতু তৈরির জন্য অর্থ বরাদ্দ হয়ে গিয়েছে শুধুমাত্র সেতু তৈরীর পর রাস্তার জন্য জমি দরকার সেই জমি জটের কারণে আটকে রয়েছে কাজ।
বৃহস্পতিবার প্রশাসনিক সূত্রে জানা গিয়েছে যে তিনটি মৌজার জমির জট কেটে গিয়েছে। এখনো হাসপুকুর মৌজার জমি জট কাটেনি। এখানে রয়েছে প্রচুর ইটভাটা তাই জমির বাজার আরো কয়েকগুণ বেশি তাই প্রশাসনের তরফ থেকে এই জমি জট কাটাতে সমস্ত রকম উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে বলে জানা গিয়েছে। প্রসঙ্গত উল্লেখ থাকে যে গত বছর কালনায় জনসভায় মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায় ঘোষণা করেছিলেন যে কালনা ও শান্তিপুরের সংযোগে ভাগীরথী দিয়ে তৈরি হবে একটি সেতু। শেষমেষ জমি জটের কারণে অনেকদিন ধরে কাজ থমকে আছে।
সেতু তৈরীর পড়ে যে সমস্ত এলাকার চাষীদের জমি রাস্তার মধ্যে পড়েছেন তার সংখ্যাটা প্রায় চার শত জন। বারবার বৈঠকেও জমির জট কাটেনি।
জমির জট কাটাতে মহকুমাশাসক থেকে শুরু করে জেলাশাসক বিজয় ভারতী জেলা সভাধিপতি শম্পা ধারা সহ-সভাপতি মহাশক্তিশালী কালনার বিধায়ক স্থানীয় প্রতিনিধিদের নিয়ে জমির জট খুলতে লাগাতার সভা আলোচনা হয়ে আসছে তাই জমির জট কাটল তিনটি মৌজার।
বিভিন্ন গ্রামের চাষীদের ডেকে জমির দর একটু বেশি ঘোষণার পর থেকে জমির জট কাটল।
জমির জট কাটাতে মহকুমাশাসক থেকে শুরু করে জেলাশাসক বিজয় ভারতী জেলা সভাধিপতি শম্পা ধারা সহ-সভাপতি, কালনার বিধায়ক স্থানীয় প্রতিনিধিদের নিয়ে জমির জট খুলতে লাগাতার সভা আলোচনা হয়ে আসছে তাই জমির জট কাটল তিনটি মৌজার।
বিভিন্ন গ্রামের চাষীদের ডেকে জমির দর একটু বেশি ঘোষণার পর থেকে জমির জট কাটল।
জমির চরিত্র অনুযায়ী দাম দেওয়া হবে এমনটাই জানানো হয়েছে।
আরো জানা গিয়েছে যে কালনা 2 নম্বর ব্লকের পূর্ব সাতগাছিয়া পঞ্চায়েতে আমসহ নানান কিছু বাগান রয়েছে এলাকায়।
জেলাশাসক দেখেছেন এলাকার ফসল কি কি হয় তাই জমিদাতাদের সাথে আলোচনা করেন এবং জমিতে যে সমস্ত মূল্যবান গাছ রয়েছে তার দাম ঠিক করে অর্থ দেয়া হবে। সরকারের তরফ থেকে জমির দর যা দেয়া হয়েছে তাতে খুশি এলাকার চাষিরা। কিন্তু এখন শুধু সমস্যা রয়েছে হাসপুকুর মৌজার জমি কেনার ক্ষেত্রে।
মহকুমা শাসক নিতেশ ঢালী জানিয়েছেন যে জমির জট আস্তে আস্তে কেটে যাচ্ছে আশা করি খুব তাড়াতাড়ি সেতুর কাজ শুরু করা যাবে।

Dailyhunt
Disclaimer: This story is auto-aggregated by a computer program and has not been created or edited by Dailyhunt. Publisher: Mongalkote.com
Top