Saturday, 14 Dec, 11.08 pm সব খবর

হোম
দীর্ঘক্ষন যাত্রীরা তাদের গন্তব্য স্থানে পৌঁছতে না পেরে বিক্ষোভে ফেটে পড়েন।

নিজস্ব প্রতিনিধি পূর্ব মেদিনীপুর:- হাওড়া খড়গপুর শাখার সাঁকরাইল স্টেশনে প্যানেলে আগুন বিক্ষোভ কারীরা আগুন লাগিয়ে দেওয়ার কারণে বিপর্যস্ত হয়ে পড়ে সিগন্যালিং ব্যবস্থা। ফলে একাধিক স্টেশনে দাঁড়িয়ে পড়ে দূরপাল্লার ট্রেন। দুপুর 12:46 থেকে পাঁশকুড়া স্টেশানে দাঁড়িয়ে যায় ডাউন চেন্নাই হাওড়া করমন্ডল এক্সপ্রেস। দীর্ঘক্ষন যাত্রীরা তাদের গন্তব্য স্থানে পৌঁছতে না পেরে বিক্ষোভে ফেটে পড়েন। বর্তমানে পাঁশকুড়া থানা রেলের আরপিএফ জিআরপি পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনার চেষ্টা চালাচ্ছে। স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, পাঁচ ঘন্টা এক্সপ্রেসের যাত্রীরা তাদের গন্তব্য স্থানে পৌঁছাতে না পেরে ক্ষুব্ধ হয়ে ওঠেন। দ্রুত ট্রেন ছাড়ার দাবিতে তারা বিক্ষোভ দেখাতে থাকেন। কিন্তু সিগন্যালিং ব্যবস্থা ঠিক না থাকায় ট্রেন চালাতে পারেনি রেল কর্তৃপক্ষ। আর তার জেরেই ক্ষুব্ধ যাত্রীরা উত্তেজিত হয়ে প্লাটফর্মের রেলিং রেললাইনে ফেলে দিয়ে বিক্ষোভ দেখাতে থাকে। ঘন্টা ধরে চলে বিক্ষোভ। বিক্ষোভ কারীদের অভিযোগ ট্রেন দাঁড়িয়ে থাকলেও রেলের তরফে খাওয়া-দাওয়াও জলের কোন বন্দোবস্ত করা হয়নি। আর যে কারণে তাদের হয় রানির শিকার হতে হচ্ছে। মাঝে সাঁকরাইলে ট্রেন পরিষেবা বিপর্যস্ত থাকায় ডাউন কর মন্ডল এক্সপ্রেস কে পুনরায় খড়গপুরে নিয়ে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নেন রেল। কিন্তু যাত্রীদের দাবি করেন এক্সপ্রেসকে নিয়ে যেতে হবে হাওড়া পর্যন্ত।
পরে স্পেশাল ট্রেনের ব্যবস্থা করে যাত্রীদের হাওড়া নিয়ে যাওয়ার আশ্বাস দেওয়া হলে বিক্ষোভ।

Dailyhunt
Disclaimer: This story is auto-aggregated by a computer program and has not been created or edited by Dailyhunt. Publisher: Sob Khobor
Top