Tuesday, 11 Aug, 4.22 pm THE WALL

নিউজ
ভুট্টাওয়ালার ঠেলাগাড়ি উল্টে দিলেন সাব-ইনস্পেক্টর! বারাণসীর ভিডিও ভাইরাল হতেই নিন্দার ঝড়, ক্ষমা চাইল পুলিশ

    দ্য ওয়াল ব্যুরো: পথবিক্রেতার ঠেলাগাড়ি উল্টে দেওয়ার অভিযোগে সাসপেন্ড করা হল বারাণসীর এক সাব ইনস্পেক্টরকে। তাঁর বিরুদ্ধে অভ্যন্তরীণ তদন্তও শুরু হয়েছে দফতরের অন্দরে। এই ঘটনাটির ভিডিও সামনে আসে সম্প্রতি। তার পরেই নেট-দুনিয়ায় ভাইরাল হয়ে যায় পুলিশের এই অমানবিক রূপ। এর পরেই অভিযুক্ত ইনস্পেক্টরের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয় পুলিশ। ৩০ সেকেন্ডের ভিডিও ক্লিপে দেখা যায়, সাব ইনস্পেক্টর বরুণ কুমার শশী বারাণসীর শিবপুর এলাকায় এক ভুট্টাওয়ালার ঠেলাগাড়ি উল্টে দিলেন মাঝরাস্তায়। দেখেই বোঝা যাচ্ছে, তিনি ইচ্ছাকৃত ভাবেই করলেন এই কাজটি, যাতে রাস্তার গাড়িঘোড়ার সঙ্গে ধাক্কা না লাগে, অথচ সব ভুট্টা উল্টে গিয়ে ক্ষতি হয় বিক্রেতার।

দেখুন সেই ভিডিও।

সোমবারের এই ঘটনার ভিডিও কিছুক্ষণের মধ্যেই ভাইরাল হয়ে যায়। এর পরে ওই ক্লিপ-সহকারে বারাণসী পুলিশ একটি ভিডিও বার্তার মাধ্যমে সর্বসমক্ষে ওই বিক্রেতার কাছে ক্ষমাও চায় তাদের কর্মীর দুর্ব্যবহারের জন্য। ভুট্টাবিক্রেতার যা ক্ষতি হয়েছে, তা আর্থিক ভাবে পূরণ করে দেওয়ার প্রতিশ্রুতিও দেওয়া হয়।

বারাণসী পুলিশ বিবৃতি দিয়ে জানিয়েছে, 'একটি ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে। তাতে দেখা যাচ্ছে, সাব ইনস্পেক্টর বরুণ কুমার শশী একজন ভুট্টা বিক্রেতার ঠেলাগাড়ি উল্টে দিয়েছেন বারাণসীর শিবপুর এলাকায়। ওই পুলিশকর্মীকে সাসপেন্ড করা হয়েছে। তাঁর বিরুদ্ধে বিভাগীয় তদন্তও শুরু হয়েছে। বিক্রেতাকে আর্থিক ভাবে ক্ষতিপূরণ দেওয়া হয়েছে।'

যদিও এ কথা এখনও স্পষ্ট হয়নি, যে ওই পুলিশকর্মী ঠিক কী কারণে এমন কাণ্ড ঘটালেন। তবে একটি সূত্রের খবর, বিকেল পাঁচটা থেকে লকডাউন শুরু হওয়ার পরেও বিক্রেতা তাঁর ব্যবসা চালাচ্ছিলেন। সে কারণেই শাস্তি স্বরূপ ওই পুলিশ এমনটা ঘটিয়েছেন কিনা, তাও খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

গত মাসের শেষের দিকেই মধ্যপ্রদেশের ইন্দোরে পরেশ নামে এক কিশোর ছেলের ডিমের গাড়ি উল্টে দেওয়ার ভিডিওটি দেখে নিন্দার ঝড় উঠেছিল নেটিজেনদের মধ্যে। পরিবারের অভাবের তাড়নায় ঠেলাগাড়িতে করে ডিম বিক্রি করতে শুরু করেছিল সে। কিন্তু পুলিশকে ১০০ টাকা ঘুষ দিতে না পারার কারণে তার সমস্ত ডিম রাস্তায় ফেলে ভেঙে দিয়েছিলেন দুই সিভিক পুলিশ।

সেবারেও ঘটনার ভিডিও ভাইরাল হওয়ার পরে মধ্যপ্রদেশের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী দ্বিগিজয় সিং কিশোরের পরিবারের হাতে ১০ হাজার টাকা দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দেন। পাশাপাশি ওই কিশোরের পড়াশোনারও ব্যবস্থা করবেন বলে জানান। এবার ফের একই কাণ্ড ঘটল উত্তরপ্রদেশের বারাণসীতে।

Dailyhunt
Disclaimer: This story is auto-aggregated by a computer program and has not been created or edited by Dailyhunt. Publisher: The Wall
Top